সাতক্ষীরায় এই প্রথম তালা উপজেলার নগরঘাটায় সঞ্জয় সরকার নামে এক এনজিও কর্মী করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। তিনি নগরঘাটা ইউনিয়নের কাপাসডাঙ্গা গ্রামের প্রভাষ সরকারের ছেলে। তিনি সদরের বিনেরপোতায় ঋশিল্পী নামে একটি এনজিওর হ্যান্ডিক্রাফেটস সেকশনের প্রোডাকশন ম্যানেজার বলে জানা গেছে।

ডেস্ক রিপোর্ট : করানোর উপসর্গ থাকায় গত ২৮ এপ্রিল তালা উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ তার নমুনা সংগ্রহ করে খুলনা মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পাঠায়। এরপর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় খুলনা মেডিকেল কলেজের সংশ্লিষ্ট ইউনিট থেকে তার করোনার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে মর্মে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়াত।
তালা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার ডা. রাজীব সরদার জানান, আক্রান্ত ব্যক্তি বাড়িসহ তার আশ পাশের ১০ টি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। টানানো হয়েছে লাল পতাকা। এছাড়া তার পরিবারের সকলের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, আপাতত ওই করানো আক্রান্ত ব্যক্তি হোমকোয়ারেন্টানে থাকবেন। স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ তাকে দেখভাল করবেন।।
প্রসঙ্গতঃ এর আগে যশোরের শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক মেডিকেল টেকনোশিয়ান তার কর্মস্থল থেকে করোনা আক্রান্ত হয়ে সাতক্ষীরায় এসে শহরের উত্তর কাটিয়াস্থ ভাড়া বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।
এদিকে, সাতক্ষীরায় মোট ৩ হাজার ৬২৪৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টানে রাখা হয়েছে। ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে আরো ৩ হাজার ৫৫৭ জনকে। এছাড়া, এ জেলা থেকে এ পর্যন্ত মাট ৩৪২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআর ও পিসিআরল্যাব পাঠানো হয়েছে। ইতিমধ্যে ১৯০ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পোঁছছে। এর মধ্যে ১৮৯ টি রিপোর্ট নেগেটিভ ও একটি পজিটিভ এসেছে।